লকডাউনে সন্তানদের খাবার না দিতে পেরে বাবার আত্মহত্যা!

News News

Desk

প্রকাশিত: ১:২৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ৫, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দেশে চলমান লকডাউনে কাজ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেলে অভাবের কারণে পারিবারিক সমস্যা বেড়ে যায়। সেই সমস্যার জের ধরেই মুন্সিগঞ্জ সদরে এক দিনমজুর ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

মহিপুরে কিশোরকে অপহরণ করে গাছে বেধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল!

রোববার (৪ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে সদর উপজেলার পশ্চিম মুক্তারপুর এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত ব্যক্তি দ্বীন ইসলাম বরিশাল জেলার কাউনিয়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি মা, স্ত্রী ও দুই ছেলেমেয়ে নিয়ে মুক্তারপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।

 

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, করোনার কারণে কাজ না থাকায় সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছিলেন দ্বীন ইসলাম। এ নিয়ে স্ত্রী শাহিদা বেগমের সঙ্গে তার কলহ আরও বেড়ে যায়। রোববার (৪ জুলাই) সকালে ফের স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া হয়। এ সময় স্ত্রীকে ঘর থেকে বের করে দেন দ্বীন ইসলাম। পরে দরজা বন্ধ করে ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

 

নিহতের স্ত্রী শাহিদা বেগম বলেন, দেশে চলমান লকডাউনে কাজ ছিল না। ঘরে বাজার-সদাই কিছুই নেই। পোলাপাইনরে খাওয়াতে পারছিলাম না। সংসারে অভাব দেইখা মনে করছে পুলাপানরে খাওয়াইতে পারি না, বাইচা থাইকা কী করুম। উনি তো মইরা গেছে, আমি কি করুম? লকডাউন খুললে কাজ করে আমাদের খাওয়াইতে পারত। আমি তো তাও পারুম না।

এ বিষয়ে মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মুন্সিগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। কি কারণে আত্মহত্যা করেছে বিষয়টি আমার জানা নেই।