সরকার কর্তৃক দেয়া বিধি-নিষেধ এর কঠোর বাস্তবায়নে আইজিপি’র নির্দেশ

News News

Desk

প্রকাশিত: ১:২৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১, ২০২১

বাপ্পি মন্ডলঃ করোনা (COVID-19 ) এর বিস্তার রোধে ০১ জুলাই ২০২১ সকাল ছয়টা থেকে ০৭ জুলাই ২০২১ মধ্যরাত পর্যন্ত সরকার কর্তৃক বিধি-নিষেধ জারি হয়।

থানাকে আরও আস্থার পরিবেশে রুপান্তর করতে হবে”পুলিশ কমিশনার বিএমপি

৩০ জুন ২০২১ খ্রি. বিকালে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স থেকে মাননীয় ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ, বাংলাদেশ ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) মহোদয় ভার্চুয়ালি সকল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার, রেঞ্জ ডিআইজি, জেলা পুলিশ সুপার ও থানার অফিসার ইন-চার্জসহ সকল ইউনিট প্রধানদের মাধ্যমে (COVID-19 ) এর বিস্তার রোধে
উক্ত নির্দেশনা কঠোরভাবে প্রতিপালনের জন্য নিয়োজিত সকল সংস্থাসমূহের সাথে সমন্বয় করে কাজ করার জন্য মাঠ পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

এ-সময় বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম-বার বিএমপি’র শীর্ষ ও সংশ্লিষ্ট মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত ভার্চ্যুয়াল সভায় অংশগ্রহণ করেন।

আইজিপি মহোদয়, সরকারি বিধি-নিষেধ চলাকালে সকলকে ঘরে থাকার আহবান জানিয়ে সরকা‌রি নি‌র্দেশনা অনুযায়ী জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হতে হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের অনুরোধ করেন।

সভা শেষে বিএমপি কমিশনার জনাব মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম-বার বিএমপি’র সকল বিভাগের অফিসাবৃন্দ’র উদ্দেশ্যে আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশনা বাস্তবায়নে আলোচ্য বিষয় পুনরাবৃত্তি করেন এবং তা পুঙ্খানুপুঙ্খরুপে পালনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

নির্দেশনা সমূহঃ

♦️সকল সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়তশাসিত ও বেসরকারি অফিসসমূহ বন্ধ থাকবে; সড়ক, রেল ও নৌ-পথে গণপরিবহন (অভ্যন্তরীণ বিমানসহ) ও সকল প্রকার যন্ত্রচালিত যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে; শপিংমল/মার্কেটসহ সকল দােকানপাট বন্ধ থাকবে; সকল পর্যটন কেন্দ্র, রিসাের্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনােদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

♦️জনসমাবেশ হয় এ ধরণের সামাজিক (বিবাহােতর অনুষ্ঠান (ওয়ালিমা), জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি), রাজনৈতিক ও
ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

♦️বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আদালতসমূহের বিষয়ে প্রয়ােজনীয় নির্দেশনা জারি করবে।

♦️ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রয়ােজনীয় নির্দেশনা জারি করবে।

♦️ আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিসেবা, যেমন-কৃষি পণ্য ও উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক, কৃষি যন্ত্রপাতি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও
খাদ্যদ্রব্য পরিবহণ, ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্য সেবা, কোডিড-১৯ টিকা প্রদান, রাজস্ব আদায় সম্পর্কিত কার্যাবলি, বিদ্যুৎ, পানি,
গ্যাস/জ্বালানি, ফায়ার সার্ডিস, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া),
বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবা, ব্যাংক, ফার্মেসি ও ফার্মাসিটিক্যালসসহ অন্যান্য জরুরি/অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার
সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমুহের কর্মচারী ও যানবাহন প্রাতিষ্ঠানিক পরিচয়পত্র প্রদর্শন সাপেক্ষ যাতায়াত করতে পারবে।

♦️পণ্য পরিবহনে নিয়ােজিত ট্রাক লরি কাভার্ড ভ্যান/কার্গো ভেসেল এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বহির্ভূত থাকবে।

♦️ বন্দরসমূহ (বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল) এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বহির্ভূৃত থাকবে।

♦️ শিল্প-কারখানাসমূহ স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণপূর্বক নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় চালু থাকবে।

♦️ কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়ােজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯:০০টা থেকে বিকাল ৫:০০টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয়
করা যাবে। সংশ্লিষ্ট বাণিজ্য সংগঠন/বাজার কর্তৃপক্ষ, স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি নিশ্চিত করবে।

♦️ অতি জরুরি প্রয়ােজন ব্যতীত (ঔষধ ও নিত্য প্রয়ােজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ইত্যাদি)কোনােভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না। নির্দেশনা অমান্যকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

♦️ টিকা কার্ড প্রদর্শন সাপেক্ষে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে।

♦️খাবারের দোকান, হােটেল-রেস্তোরী সকাল ০৮.০০টা থেকে রাত ০৮,০০টা পর্যন্ত খাবার বিক্রয় (Online/Take away)করতে পারবে।

♦️ আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু থাকবে এবং বিদেশগামী যাত্রীরা তাদের আন্তর্জাতিক ভ্রমণের টিকেট প্রদর্শন করে গাড়ি ব্যবহারপূর্বক যাতায়াত করতে পারবে।

♦️ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে মসজিদে নামাজ আদায় করবে।