ছোট গল্প, মধ্যবিত্তঃ মুশফিকুর রহমান অনিক

News News

Desk

প্রকাশিত: ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৪, ২০২১

 

ভার্সিটির হল থেকে এলোমেলো চুলে অগোছালো টি-শার্ট পরে বেড়িয়ে আশা ছেলেগুলো কর্পারেট ওয়ালা মেয়েদের কাছে খুব স্পেশাল হয়।একটা সময় ঐ ছেলেগুলো কর্পারেট ওয়ালা মেয়েদের প্রতি বোকার মত মায়ায় আকৃষ্ট হয়। বেশিরভাগ ছেলগুলো হয় মধ্যবিত্য। হাত খরচ চালানোর জন্য দু-চারটা টিউশনি করে থাকে।তাদের ও দিব্যি চলে যায়।অগাছালো রুমে আর ক্যান্টির ডাল খেয়ে আর বিসন্নতার সময় টং এর দোকানে নিকোটিন ধোয়ার সাথে এককাপ চা খেয়ে থাকে ।বেশি খুচরা পয়সা থাকলে একটা বিস্কুট। তবে এসব ছেলেরা যে বাসায় টিউশনি নেয় তারা বলে দিতে পারে বাজারে কত ধরনের বিস্কিট থাকে।কারন তাদের পড়ানোর সময় বিস্কিট আর এক কাপ চা দিয়ে থাকেন।অনেক সময় এই ছেলে গুলো পড়াতে গিয়ে প্রেমেও পড়ে।তবে বেশি ভাগ প্রেম গুলোর প্রেম পূর্ণতা পায় নাহ।ঐ ছেলেগুলোর প্রতি যেসব মেয়েরা বেশি আকৃষ্ট হয় তারা নীল শাড়ী পড়তে বড্ড পছন্দ করে।এবং তার প্রিয় মানুষটিকে নীল পান্জাবী পড়ে তার সাথে দেখা করতে বলে।এবং ঐ মেয়েটি তার প্রিয় মানুষটির জন্য একগুচ্ছ বেলিফুলের জন্য বৃষ্টিস্নাত দিনে ভুনা খিচুরি রেধে প্রিয় মানুষটির জন্য অপেক্ষা করে। অনেকটা সময় মান অভিমান ও চলে।এভাবে করেই প্রায় চার বছর পার করে দেয়।পরাশুনা করে বেশিরভাগ ছেলেগুলো বেকারত্ব বোঝা পারিবারিক জটিলতা নিয়ে পার কারে।একটা সময় ঐ ছেলেগুলো তার প্রিয় মানুষটাকে হারায়।কারন ঐ মেয়েগুলো বিয়ে করে নেয় ভুরিওয়াল কর্পারেট ওয়ালা ছেলেদেরকে বাদ মাগরিব শুক্রবার। কারন মেয়েগুলো পরিস্থিতি বিপরীত থাকায় সবকিছু মেনে নিতে বাধ্য হয়।কিছু ক্ষেএে ব্যাতিক্রম ও ঘটে।তবে সেটা খুবি কম।অনেক ক্ষেএে ছেলেগুলো তো মাজ পথে হারিয়ে যায়।আর যারা পরবর্তীতে শেষ সময়ে হারায় তারা হয়তো রেশ কাটিয়ে সেড়ে উঠে তবে কিছুটা সময় আকাশের বিশালতা দিকে তাকিয়ে নিকোটিনর ধোঁয়ায় কিছু সময় পার হয়। তারপর কেটে যায় অনেকটা বছর।একটা সময় আবারো তাদের দেখা হয়। ঐ মেয়েগুলো হয়তো বড় গাড়ি করে ছেলে মেয়ে সংঙ্গে করে বেরুতে দেখা যায়।দেখা হলে বলবে কেমন আছো তুমি? হয়তো এর বেশি কিছু নাহ।আর ছেলেগুলো হয়তো কেউ প্রতিস্ঠিত হয়ে বলবে আরেকটু অপেক্ষা করলে ক্ষতি কি ছিলো?দিনশেষে সবাই হেরে যাবে সময় এবং জীবনের সাথে।তাই বলে জীবন থেমে রবে জীবনের চলবে জীবনের মত।
এটাই মধ্যেবিও ছেলেগুলো সাথে ছুটে চলা ব্যাস্তিবক উপমা।কারন মধ্যবিত্ত ছেলেদের প্রেমের শেষ পরিনতি হয় মেয়েগুলো কর্পারেট ভুড়িওয়ালা ছেলেগুল কে বিয়ে করে নেয় মাগরিব বাদ শুক্রবার। আর ছেলেগুলো নিকোটিন ধোঁয়ায় কস্টগুলো প্রকৃতি কে দেয়।আর প্রকৃতি অনিচ্ছা সত্যেও মেনে নেয়।

লেখাঃ মুশফিকুর রহমান অনিক
পটুয়াখালী সরকারি কলেজ