বেতাগীতে নির্বাচনি সহিংসতা ৩ জনকে কুপিয়ে জখম,বসত ঘর ভাংচুর!

News News

Desk

প্রকাশিত: ১২:২০ অপরাহ্ণ, জুন ৮, ২০২১

মোঃ আলমগীর হোসেন, মির্জাগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

বরগুনার বেতাগীতে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সহিংসতার জেরে কুপিয়ে জখমসহ বসতঘর ভাংচুর করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। উপজেলার মোকামিয়া ইউনিয়নের মোল্লার হাট বাজারের সর্দার বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় সোমবার রাত ৮টায় ঘটনাটি ঘটে এবং থানা পুলিশের সহায়তায় হামলার ঘটনা নিয়ন্ত্রনে আসে বলে জানান ওই ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি চেয়ারম্য্যান ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী মাহবুবুল আলম সুজন তবে হামলার ঘটনাটি অস্বীকার করেছেন ওই ইউপি থেকে আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী গাজী জালাল আহম্মেদ।
এঘটনায় গুরতর আহত হয়েছে ওই এলাকার বাসিন্দা মন্নান মৃধাসহ(৫০) তিনজন, ভাংচুর করা হয়েছে একাধিক বসতবাড়ি। আহত মন্নান মৃধার অবস্থা গুরতর হওয়ায় বেতাগী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে বরিশাল শেবাচিমে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক। এছাড়াও আহত হয়েছেন ওই ইউনিয়নের বাসিন্দা মন্নান মল্লিক(৬৫) ও শাহজাহান মল্লিক(৬০)।
জানা যায়,উপজেলার মোল্লার হাট বাজারের সর্দার বাড়ির সামনে স্বতন্ত্রপ্রার্থীর লোকজন দেখে আ.লীগ প্রার্থীর সমর্থকরা এ হামলা চালায়। ওই ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি চেয়ারম্য্যান ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী মাহবুবুল আলম সুজন অভিযোগ জানিয়ে আরো বলেন, ওই এলাকায় তার যাওয়ার খবর পেয়ে নৌকা মার্কার প্রার্থী জালাল গাজীর মামাতো ভাই দিপু, ও ভাগ্নে সজিবের নের্তৃত্বে ইলিয়াছ সর্দার, জব্বার সর্দার ও শাহীন সর্দারের বসত ঘরে হঠাৎ হামলা করে কুপিয়ে ঘর তছনছ করে। এবং তার সমর্থকদের তিনজনকে কুপিয়ে গুরতর আহত করেন।
এমন অভিযোগে আ.লীগের প্রার্থী গাজী জালাল আহম্মেদ বলেন,‘প্রতিপক্ষের লোকজন ষড়যন্ত্র মূলক নিজেরাই নিজেদের উপড় হামলা করে তার উপড় দোষ চাপাচ্ছে। তাছাড়া এখন পর্যন্ত নিবার্চনি প্রচারণা শুরুই হয়নি তার লোকজন হামলা চালানোর প্রশ্নই ওঠেনা।

বেতাগী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন,ঘটনার সাথে সাথে পুলিশ পাঠানো হয়েছে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে। দুইপক্ষের লোকজনের উপস্থিতি ছিলো লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।