ইউনিয়ন নির্বাচনের নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদ-প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন প্রত্যাশী শোয়াইব খান

News News

Desk

প্রকাশিত: ১১:০৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২১
মোঃ সাইমুন ইসলাম, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধিঃ

ইউনিয়ন পরিষদের উন্নয়ন মুলক সকল কাজের বাস্তবায়ন ও সমাজে ‘বন্ঠন নীতি’ প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে, ছাত্র রাজনীতির পাশা-পাশি নিজ ইউনিয়নের সকল শ্রেনী পেশার মানুষদের দোয়া ও ভোটরদের ভোট প্রদানের নিশ্চয়তা রেখে সমর্থন কামনা করছেন, মহিপুর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ শোয়াইব খান। বিভিন্ন সময়ে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে প্রতিহিংসা পরায়ন কর্মকান্ডে সমালোচিত হতে দেখলেও মোঃ শোয়াইব খানের ছাত্র-রাজনীতিতে স্কুল, মাদ্রসা, কলেজ পড়–য়া মেধাবী ও ঝামেলামুক্ত শিক্ষার্থীদের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছেন। গত ২৩ জানুয়ারী বেলা ১১ দিকে মহিপুর থানা ছাত্রলীগ কার্যালয়ে বেশ কিছু গণমাধ্যমের উপস্থিতিতে চা চক্রে কথা হয় নির্বাচন নিয়ে।
তফসিল ঘোষনার পূর্বেই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদ-প্রার্থী হবেন বলে এমন বক্তব্য দেন গণমাধ্যমে। দেশ, জাতি, তথা সমাজ সমুন্নত রাখতে জাতিগত ভুমিকা গুরুত্বপূর্ন। তাই এখানে শিক্ষক আর শিক্ষার্থীদের সৎ-সাহসী সমাজ ব্যাবস্থা প্রতিষ্ঠিত রাখা, সমাজের গুরত্বপূর্ন অংশ সামাজিক ভাবে সমাজে গড়ে তুলতে দায়বদ্ধ। রাষ্ট্রিয় ভাবে নির্দেশনা আর ধর্মগ্রহন্থের আদেশ-নিষেধ মান্যতার মধ্য দিয়েই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার এ দেশকে মধ্যম আয়ের, ডিজিটাল, ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুবর রহমানের সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবে রুপান্তরিত করতে, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকেইে ছাত্রলীগের ছাত্র রাজনীতিতে অংশ গ্রহণ, নিজেদের সমাজের কুসংস্কার, কুসংস্কৃতি, মাদকে লিপÍ রেখে যুব সমাজ ধ্বংসের পথে ঠেলে দেয়ার আড্ডা খানা চুর-মার করে দিয়ে, মাদক মুক্ত, কুসংস্কার আর কুসংস্কৃতি বর্জনে নের্তৃত্ব প্রদানের গর্জনে এগিয়ে যাওয়ার চলমান শক্ত শিড়িতে পা রেখেই ছাত্রলীগের রাজনীতিতে পা বাড়িছেন। যে সকল ছাত্ররা সমাজে কুসংস্কার, কুসংস্কৃতিতে সংশ্লিষ্ট তারা সকল প্রকার অপরাধ বর্জন করে, শান্ত শিষ্ট ও আদর্শ শিক্ষক-শিক্ষার্থী সমাজ ব্যাবস্থা প্রতিষ্ঠার মানসে ছাত্রলীগে অংশ গ্রহণে পরামর্শ দেন। অপশক্তি খাটিয়ে শিক্ষা ব্যাবস্থা যেমন দূর্বল করা যায় না, তেমনি ছাত্রলীগে ক্যাডার বা মাস্তানী করে নেতা হওয়া যায় না! প্রয়োজন মেধাবী শিক্ষার্থী হওয়া। যে যতো নিজেকে মেধাবী ও চরিত্রবান শিক্ষার্থী তৈরী করতে আপ্রান চেষ্টা চালায়, ছাত্রলীগ তার পাশে আছে,থাকবে।
টাকায় নয় মেধায় চাকুরী। বর্তমান সরকার মেধার মূল্যায়ন করেন। কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর থানা ছাত্রীলীগের প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সদস্য শিক্ষার্থী বন্ধুদের উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য নিজেকে পাঠ দানে গভীর ভাবে মনোনিবেশ রাখতে হবে। যে সকল স্কুল বন্ধুরা পড়া লেখা ছেড়ে অথবা ক্লাস ফাকি দিয়ে মাদক সেবনে লিপ্ত রয়েছে, সে সকল বিদ্যাপিঠের বন্ধুদের সাথে সঙ্গ দেয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে। মহিপুর থানা ছাত্রলীগের রাজনীতিতে চরিত্রবান ও মেধা ভিত্তিক শিক্ষার্থীরা কমিটিতে উচ্চ পদে ঘোষিত হবেন। নিজেদের সমাজে বা স্কুলে দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রনয়নের পাশা-পাশি সরকারী সহযোগিতা পাওয়া নিশ্চিত করন ও ছাত্রলীগের কমিটির পক্ষ্য থেকে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্য নিয়ে মহিপুর থানা ছাত্রলীগের রাজনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা অব্যহত রেখেছেন মোঃ শোয়াইব খান।
তিঁনি আরো বলেন, বাংলাদেশ আ’লীগ মহিপুর থানা শাখার সকল অঙ্গসংগঠনের সিনিয়র নেতা কর্মীদের কাছ থেকে ভালো কর্মকান্ডের দিক নির্দেশনা মুলক পরামর্শ চেয়েছেন। এবং ছাত্রলীগ কর্তৃক সমাজের কুসংস্কার বিরোধী সামাজিক আন্দোলনকে সফল করতে সার্বিক সহ-যোগিতা আশা করেণ।
মহিপুর থানাধীন ১১ নং ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের নির্বাচিত সফল চেয়ারম্যান আঃ ছালাম সিকদারের মৃত্যুতে শোকাহত ইউনিয়ন বাসী। রাষ্ট্রিয় ভাবে ১১ নং ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদেও চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করা হয়েছে। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ইং টাকা জমা দেয়ার শেষ তারিখ। এবং ২৮ ফেব্রুয়ারী ভোট গ্রহণ। আভাস কলাপাড়া উপজেলা নির্বাচন কমিশন’র। উপনির্বাচনে ১১ নং ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ, চেরম্যান পদ-প্রার্থী হিসাবে ৫ জন প্রার্থী দোয়া ও সমর্থন চেয়ে পোষ্টার ফেস্টুন দিয়েছেন এলাকায়। এর মধ্যে তিন জন প্রবীন, এক জন যুবলীগ ও একজন ছাত্রলীগ।
সংশ্লীষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদ-প্রার্থী ছাত্রলীগ নেতা সোয়াইব খান বলেন, আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। খেপুপাড়া মোহাজার উদ্দিন বিশ্বাস অনার্স সরকারী কলেজ থেকে বি এ পাশ করেছেন তিনি। তাঁর পিতা মৃত্যু ডাঃ মোঃ ইউসুফ আলী খান। গ্রামে ইউনিয়নের বরকুতিয়া গ্রামে। বর্তমানে ল’ কলেজে অধ্যয়নের পাশা-পাশি ছাত্রলীগের রাজনীতির হাল ধরে জনমানুষের সেবা কারার ব্যাপক সুযোগ কাজে লাগাতে চান। ছাত্র রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠাতা সাংগঠনিক সম্পাদক মহিপুর থানা ছাত্রলীগ, সাধারণ সম্পাদক ১১ নং ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগ, সাবেক সহ-সভাপতি কুয়াকাটা খানাবাদ কলেজ ছাত্রলীগ শাখা, সরকার কর্তৃক ইউনিয়ন পরষদের মাধ্যমে ইউনিয়নের সকল প্রকার উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ডের বরাদ্ধ হয়ে থাকলেও বহুকর্মকান্ড পৃষ্ঠার আড়ালে বাস্তবায়ন পেয়েছে। ফলে বর্তমান সরকার উন্নয়নের রোল মডেল হলেও ইউনিয়নের যাতায়াত ব্যাবস্থার চড়ম অবনতি। ফলে এ বছর ধানের মূল্যে কৃষকের মুখে সরকার হাসি ফোটাতে পারলেও যাতায়াত ব্যাবস্থার বেহাল দশায় আসল মূল্য হাড়াতে হয়েছে।
বর্ষা মৌসূমে ওই সকল কাচা ও নিচু রাস্তা চলাচলে অনুপযোগি হয়ে যায়। ফলে শিক্ষার্থীদের বিদ্যাপিঠে অধ্যয়ন ও যে কোন রোগী বা গর্ভবতী মাকে নিয়ে চড়ম বিপাকে পরতে হয়। এ ছাড়াও সরকারী বা বেসরকারী শিক্ষা, দরিদ্র, বিধবা, প্রতিবন্ধী ও বয়স্বক ভাতা প্রদানের সঠিক বন্ঠন নীতি বাস্তবায়ন এবং বেকার যুবক-যুবতীদের সরকারী প্রশিক্ষন ও সহায়তার মাধ্যমে কর্মসংস্থান তৈরী বা সৃষ্টি করে বেকারত্ব দুর করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র বাংলাদেশকে সোনার বাংলা হিসাবে গড়ার স্বপ্ন।