কুয়াশায় নৌযান বন্ধ, পদ্মা পারের অপেক্ষায় শত শত যাত্রী

News News

Desk

প্রকাশিত: ৯:৫৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০২০
মোঃ রোমান জমাদ্দার, মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ

ঘন কুয়াশার কারণে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে বন্ধ রয়েছে ফেরিসহ সকল নৌযান। এদিকে রাজধানী ঢাকা যেতে পদ্মা পার হতে ভোর থেকেই ঘাটে অপেক্ষা করছে দক্ষিনাঞ্চলের বিভিন্ন জেলার শত শত মানুষ। কুয়াশা কমে যাওয়ার অপেক্ষায় ঘাটের লঞ্চ ও স্পিডবোট টার্মিনালে ভীড় করছে তারা।

জানা গেছে, ভোরের দিকে কুয়াশা কম থাকায় বিভিন্ন জেলার সাধারন যাত্রীরা ঢাকা যাবার উদ্দেশ্যে ঘাটে আসে। সকাল পৌনে সাতটা থেকে হঠাৎ করেই কুয়াশার পরিমান বাড়তে থাকায় নৌরুটের লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও রাত ২ টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঘাট সূত্রে জানা গেছে, সকালে কুয়াশার মাত্রা হঠাৎ করে বেড়ে গেলে সামান্য দূরত্বেও কিছু দেখা যাচ্ছিল না। ফলে দূর্ঘটনা এড়াতেই লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ রাখা হয়েছে।

ঘাটে অপেক্ষামান যাত্রী আজিজুল হক বলেন,’ভোরের দিকে তেমন কুয়াশা ছিল না। কিন্তু এর কিছুক্ষন পরেই প্রচুর কুয়াশা পরতে থাকে। ঘাটে অপেক্ষায় রয়েছি কুয়াশা কেটে যাওয়ার।’

তিনি আরো বলেন,’সকাল সাতটা থেকে ঘাট অপেক্ষা করছি। এরই মধ্যে অসংখ্য যাত্রীরা ঘাটে এসে ভিড় করছে। লঞ্চ, স্পিডবোট ঘাটেই যাত্রীদের প্রচন্ড ভীড়। কুয়াশা কাটলেই নৌযানে উঠার প্রতিযোগিতা শুরু হবে।’

এদিকে বাংলাবাজার লঞ্চঘাট সূত্র জানিয়েছে,ভোর থেকেই লঞ্চ বন্ধ রয়েছে। নৌরুটে দিক নির্ণয় সম্ভব হচ্ছে না। দূর্ঘটনা এড়াতে লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ রাখা হয়েছে। এদিকে যাত্রীরাও ঘাটে ভিড় করেছে। তবে কুয়াশা না কমলে নৌযান চলাচল শুরু করবে না।’

বিআইডব্লিউটিএ’র লঞ্চ ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন জানান,’ভোরে কুয়াশা কম থাকায় যাত্রীরা বেশি সংখ্যক ঘাটে চলে এসেছে। কিন্তু সকাল সাতটার দিকেই কুয়াশা বেড়ে গেছে। কুয়াশা কমলেই নৌযান চলাচল শুরু করবে।’