মারা গেলেন সাবেক ফুটবলার ও বাফুফের সাবেক সহ-সভাপতি বাদল রায়

News News

Desk

প্রকাশিত: ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২০

চলে গেলেন সাবেক ফুটবলার ও বাফুফের সাবেক সহ-সভাপতি বাদল রায়। দীর্ঘদিন ধরে নানা রোগে ভুগছিলেন তিনি। সবশেষ লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি ছিলেন হাসপালাতে। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

একজন তারকা ফুটবলার, একজন স্বপ্নবিলাসী সংগঠক কিংবা এক প্রতিবাদি কন্ঠস্বর, সবমিলিয়ে একজন বাদল রায়। দেশের ফুটবলের অভিধানে যার নামের পাশে লেখা থাকবে অসংখ্য উপমা। শুধু ফুটবল নয়, সফল ক্রীড়া সংগঠকও তিনি। কিন্তু যে ফুটবলের নায়ক ছিলেন তিনি, সেই খেলাকে ঘিরেই অনেক অভিমান জমা ছিল বাদল রায়ের। আর সেই অভিমান নিয়েই চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

দীর্ঘদিন ধরেই নানা শারিরীক জটিলতায় ভুগছিলেন। ২০১৭ সালে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের পর স্বাভাবিক চলাফেরা কঠিন হয়ে পড়ে। আগস্টে করোনা আক্রান্তের পর গেলো ১৫ নভেম্বর লিভারে ক্যান্সার ধরা পরে বাদল রায়ের। রোববার বিকেলে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

দেশের ফুটবলের অন্যতম সেরা তারকার প্রয়ানে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী। হাসপাতালে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত হন তার দীর্ঘদিনের বন্ধু, সতীর্থ, সহকর্মীসহ শুভানুধ্যায়ীরা।

ফুটবলই ছিলো তার ধ্যানজ্ঞ্যান। অসুস্থতার মাঝেও ফুটবলের সাথে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছিলেন। ঐতিহ্যবাহী ক্লাব মোহামেডানের পুনর্গঠনে ছিলেন সোচ্চার। সবশেষ ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাচনে লড়েছিলেন সভাপতি পদে। এর আগে তিন মেয়াদে ছিলেন বাফুফের সহ-সভাপতি।

খেলোয়াড়ি জীবনে আশির দশকে মাঠ মাতিয়েছেন। ১৯৮২ দিল্লি এশিয়াডে তার গোলেই ভারতকে হারিয়েছিলো বাংলাদেশ। আর ক্লাব ক্যারিয়ারের পুরোটা ছিলেন মোহামেডানের ঘরের ছেলে হয়ে।

বাদল রায়ের মৃত্যুতে ফুটবলের একটি অধ্যায় শেষ হলো। তবে ক্রীড়াঙ্গনের প্রতিবাদী কন্ঠস্বর হিসাবে তিনি ঠিক বেঁচে থাকবেন।