মা ইলিশ ধরার দায়ে বেলকুচিতে ২২ জেলের কারাদণ্ড

News News

Desk

প্রকাশিত: ১০:১৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৬, ২০২০
এসএমএ কামাল পারভেজ, সিনিয়র রিপোর্টার:

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলাংশে যমুনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ ধরার দায়ে ২২ জেলেকে ১২ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান এর নেতৃত্বে চলমান ভ্রাম্যমান আদালত এই দণ্ডাদেশ প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন বেলকুচি উপজেলার ঠাকুরপাড়া গ্রামের চান মিয়া (৪০), বেলকুচির চরবেল গ্রামের আব্বাস (৩২), বেলকুচি গ্রামের নুরে আলম (২৬), শাকিল (১৯),চর বেল গ্রামের খাইরুল (৩০), কবিরুল (৩০), রফিকুল (৪০), সোলেমানব(১৯), মূলকান্দি গ্রামের আলমগীর (২৮),ইউসুফ (৩৮), চৌহালী উপজেলার চাদপুর গ্রামের সোনা মিয়া (৩৫),
মান্নান( ৩০),দুলাল (৪৩),
মজিবর (৪১), বারবালা গ্রামের ফরিদুল (৩১),ফরজ আলী (৫২), সামিউল (১৯),
খোরশেদ(৩২), নাইম (২০), বোয়ালকান্দি গ্রামের রবিউল (২৬),
হাসেম (৩৫),চালুহারা গ্রামের কাইয়ুম (১৯)।
উক্ত আসামীদের সাজা পরোয়ানামূলে সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার হাফিজ উদ্দিন বিজয়ের বাংলাদেশ কে জানান, রবিবার বিকাল ৫ টা হতে গভীর রাত পর্যন্ত সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার যমুনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় কারেন্ট জাল দিয়ে মা ইলিশ মাছ ধরার অপরাধে ২২ জনকে আটক,৫০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ১০ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়।পরে ভ্রাম্যমান আদালতে ২২ জনের প্রত্যেক কে ১২ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে এবং জব্দকৃত কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধবংস করা হয় এবং জব্দকৃত মাছগুলো স্থানীয় এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ হাসান মাহমুদুল হক ও বেলকুচি থানা পুলিশের এএসআই মোস্তাফিজ।