টেলিভিশন সংবাদে বিজ্ঞাপন প্রচারে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা স্থগিত

টেলিভিশন সংবাদে বিজ্ঞাপন প্রচারে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা স্থগিত

News News

Desk

প্রকাশিত: ৮:৫৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০২০

টেলিভিশনের সংবাদ শিরোনামে বিজ্ঞাপন প্রচারে নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত খবরের স্পন্সর বিজ্ঞাপন প্রচারে বাধা নেই। বিটিআরসির আইনজীবী বলছেন, বিজ্ঞাপন বন্ধ চেয়ে মামলা করার এখতিয়ারই ছিল না রিটকারীর। অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, এভাবে বিজ্ঞাপন বন্ধ করলে অনেক বেসরকারি চ্যানেল বন্ধ হয়ে যাবে।

বেসরকারি টেলিভিশনগুলোর আয়ের একমাত্র উৎস বিজ্ঞাপন। রিটকারীর আইনজীবীর দাবি, টেলিভিশনগুলো বিজ্ঞাপন প্রচার করতে পারবে। তবে সংবাদের বিভিন্ন অংশে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের স্পন্সরকৃত বিজ্ঞাপন প্রচার করা যাবেনা। নয়বছর আগের করা এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছর স্পন্সরকৃত বিজ্ঞাপন প্রচারে নিষেধাজ্ঞা দেন উচ্চ আদালত।
এ আদেশের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে যান টেলিভিশন চ্যানেল গুলো। শুনানি শেষে রোববার (১৮ অক্টোবর) হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেন প্রধান বিচারপতির আদালত।
বিটিআরসির আইনজীবী খন্দকার রেজা ই রাকিব বলেন, ‘তারা একটি হাইপোথিটিক্যাল ইস্যুর উপরে নির্ভর করে এই বিচার হয়েছিলো। আমাদের সাবমিশনটা এখানে ছিলো টিভি স্টেশনগুলো তারা স্পন্সর করতে নিউজগুলো আর আইনগত আপাতত কোন বাধা নেই।’
অ্যার্টনি জেনারেল শুনানিতে বলেন, বিজ্ঞাপন বন্ধ হলে অনেক বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ হয়ে যাবে।
অ্যার্টনি জেনারেল অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, ‘হাইকোর্ট ডিভিশন নিজেই বলছে বিজ্ঞাপন প্রচার করতে পারবে, খবরের মাঝখানে প্রচার করতে পারবো, হাইকোর্ট বলতে টিভি কর্তৃপক্ষ যেটা করতে পারবে না সেটা হল কোন সেগমেন্ট ভাগ করতে পারবেন না। এটা তো কোনভাবে হতে পারেনা। বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলো নির্ভর করে বিজ্ঞাপনের উপরেই। বিশেষ করে যারা খবর দেখান এদের জন্য সমস্যা হয়ে যাবে বেশি তাই আদালত এটা বিবেচনায় নিবে।’
হাইকোর্টের আদেশের পর অনেক প্রতিষ্ঠান বিজ্ঞাপন দেয়া থেকে বিরত থাকছেন। এ আদেশের ফলে বিজ্ঞাপন দিতে বাধা কেটে গেলো।