সিরাজগঞ্জের বেলকুচি-উল্লাপাড়া সংযোগ সড়কের বেহাল দশা, চলাচলে সীমাহীন দুর্ভোগ

News News

Desk

প্রকাশিত: ১০:৩৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২০
এসএমএ কামাল পারভেজ, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি :

খানা খন্দে ভরপুর সিরাজগঞ্জের বেলকুচি-উল্লাপাড়া সংযোগ সড়কের বেহাল দশা সাধারণ মানুষের চলাচলে সীমাহীন দুর্ভোগ সৃষ্টি করেছে।

জেলার বেলকুচির সদরের মুকুন্দগাঁতী থেকে কান্দাপাড়া হয়ে উল্লাপাড়া পর্যন্ত অতি জনগুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক সড়ক টি সংস্কারের অভাবে স্বাভাবিক চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। খানাখন্দে ভরা সড়কে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে চলাচল করতে গিয়ে প্রতিনিয়ত পথচারী ও যাত্রীরা নানামুখী ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। বিশেষ করে তাঁতশিল্প অধ্যুষিত যমুনার পশ্চিম পাড়ের বেলকুচি, উল্লাপাড়া, শাহজাদপুর উপজেলার বিপুল সংখ্যক মানুষ দেশের গুরুত্বপূর্ণ সোহাগপুর,
শাহজাদপুর এবং আতাইকুলার কাপড়ের হাটে তাদের তৈরি কাপড় এবং ব্যবসায়ীক সামগ্রী আনা নেওয়া ও বেচা-কেনার জন্য যাতায়াতের মাধ্যম হিসেবে এবং বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য মানসম্পন্ন বৃহত্তম চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান খাজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতালে জরুরি রোগী পরিবহনের ক্ষেত্রে এই সংযোগ সড়কের আলাদা গুরুত্ব এবং প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় বেলকুচির মামুদপুর, কামারপাড়া, কান্দাপাড়া, মবুপুরের (মৌপুর) বিভিন্ন অংশে অসংখ্য ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।
মবুপুর থেকে উল্লাপাড়া পর্যন্ত অংশের অবস্থা অপেক্ষাকৃত ভালো হলেও সন্তোষজনক নয়।
বেলকুচি-উল্লাপাড়া সংযোগ সড়কের সর্বশেষ অবস্থা সরজমিনে দেখার পথে বেলকুচি উপজেলার কান্দাপাড়া, মবুপুর, সগুনা চৌরাস্তা এবং উল্লাপাড়ার
কৃষকগঞ্জ বাজারে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে বিজয়ের বাংলাদেশ প্রতিনিধির কথা হয়।
তারা সকলেই জানিয়েছেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের ১৮ কিলো মিটার দৈর্ঘের বেলকুচি-উল্লাপাড়া সংযোগ সড়কের, বিশেষ করে বেলকুচি অংশের কান্দাপাড়া বাজার হতে সগুনা চৌরাস্তা পর্যন্ত রাস্তার অবস্থা অত্যন্ত খারাপ। তারা বলেন খানাখন্দে ভরা এই রাস্তায় প্রতিদিন শতশত যানবাহন চলাচলের কারণে রাস্তার অনেক জায়গায় পিচ,সুর্কি, ইট উঠে যাওয়ায় ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে এবং বৃষ্টি হলেই এসব গর্তে পানি আটকে যায়। ফলে সব ধরনের যানবাহনের দুর্ঘটনায় পতিত হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায় বহুগুণ এবং চলাচলের ক্ষেত্রে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহানো সহ দুর্ঘটনার শিকার হতে হয় সাধারণত পথচারীদের। বিশেষ করে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের যাতায়াত, মালামাল পরিবহন এবং জরুরি রোগী বহন মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে ওঠে।
ভুক্তভোগী স্থানীয় জনগণ অভিযোগ করে বলেন শেখ হাসিনা সরকারের অবিস্মরণীয় এবং দৃশ্যমান উন্নয়ন চলমান থাকলেও শুধুমাত্র কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় সৃষ্ট জনগুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তার বেহাল দশাকেই তাদের ভোগান্তির কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। সেই সাথে অনতিবিলম্বে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে প্রয়োজনীয় সংস্কার দ্বারা সড়ক টিকে ব্যবহারোপযোগী করে তোলার জোর দাবি জানান।

এ বিষয়ে বেলকুচি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব নুরুল ইসলাম সাজেদুল এর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে, তিনি এই প্রতিবেদক কে জানান সামনে হিন্দু সম্প্রদায়ের বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব দূর্গাপুজা উপলক্ষ্যে রাস্তায় ব্যাপক যানবাহন চলাচলের কথা মাথায় রেখে বেলকুচি- উল্লাপাড়া সংযোগ সড়কের দ্রুত সংস্কারের বিষয়ে তিনি জেলা সড়ক ও জনপদ বিভাগের প্রকৌশলীকে জানিয়েছি এবং স্বল্পতম সময়ের মধ্যে কাজ শুরুর কথা থাকলেও এখনো শুরু হয়নি মর্মে বিজয়ের বাংলাদেশ কে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব নুরুল ইসলাম সাজেদুল।

এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী (সওজ) আশরাফুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমাদের মালামাল বহনের কাজে ব্যবহৃত ট্রাকটি বিকল হওয়ায় কাজ করা পিছিয়ে যায়, তবে খুব দ্রুতই কাজ শুরু করা হবে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।