হাটিকুমরুলে সেই জমজ বাইক উধাও!

News News

Desk

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২০
এসএমএ কামাল পারভেজ, সিনিয়র রিপোর্টার:
সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার হাটিকুমরুলে জমজ বাইকের “সন্ধান শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর ইউসুফের সেই জমজ বাইক উধাও হয়ে গেছে। গত ৫ অক্টোবর সিরাজগঞ্জের বহুল আলোচিত উত্তর বঙ্গের প্রবেশ দ্বার সলঙ্গা থানার হাটিকুমরুল গোলচত্ত্বর এলাকায় মেসার্স মায়ের দোয়া হোন্ডা সার্ভিস এ সন্ধান মেলে একই নম্বর প্লেটের রেজিস্ট্রেশনকৃত দুটি বাজাজ সিটি হান্ড্রেড বাইক। প্রত্যক্ষদর্শীরা তাতক্ষণিক গণমাধ্যম র্কমীদের খবর দিলে, গণমাধ্যম র্কমীরা সেখানে উপস্থিত হলে ঘটনার সত্যতা পান। রেজিস্ট্রেশনকৃত একই নম্বর প্লেট দুটি বাইকে লাগানোর বিষয়টি মেসার্স মায়ের দোয়া হোন্ডা সার্ভিসের মালিক ইউসুফের কাছে জানতে চাইলে তিনি কথা না বলে গোপনে বাইক দুটি সরিয়ে ফেলেন। ইউসুফের সহযোগী হাসান তালুকদার বলেন দুটি বাজাজ সিটি হান্ড্রেড বাইক এর মালিক ইউসুফ এবং তার একটির রেজিষ্ট্রেশন থাকলেও অন্যটির নেই। হাসান তালুকদার আরো বলেন, ইউসুফ প্রশাসনের গাড়ী মেরামত করে তাই সে একই নম্বর প্লেট দিয়ে দুটি বাইক চালালে গনমাধ্যম কর্মীদের সমস্যা কোথায়? পরে গণমাধ্যম কর্মীরা ভিডিও ধারণ করতে গেলে হাসান তালুকদার তাদের প্রান নাশের হুমকি দেয়।
পরে ৬ তারিখে বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় এবং ৭ তারিখে আঞ্চলিক সহ বেশকিছু জাতীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে ইউসুফ স্থানীয় সাংবাদিক কাইয়ুম মাহমুদকে ডেকে নিয়ে মারধরের চেষ্টা করে । স্থানীয়রা বাঁধা প্রদান করলে তাকে আবারও প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। এ বিষয়ে সাংবাদিক কাইয়ুম মাহমুদ সলঙ্গা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। সংবাদ প্রকাশের পর ৮ ই অক্টোবর থেকে ইউসুফকে আর তার গাড়ী নিয়ে চলাফেরা করতে দেখা যায়নি। স্থানীয় সচেতন মহল ইউসুফের এই বেপোরোয়া হয়ে ওঠা এবং সরকারী ট্যাক্স ফাকি দিয়ে গাড়ী চালোনোর বিষয়ে তার কঠোর শাস্তির দাবী জানান।