জার্মানির সঙ্গে তুরস্কের রোমাঞ্চকর ড্র

News News

Desk

প্রকাশিত: ১২:৩৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০২০

ম্যাচটি ছিল নিছক প্রস্তুতি ম্যাচ। তবে পুরো ম্যাচেই ছিল দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ। তিন তিনবার এগিয়ে গিয়েছিল চার বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। কিন্তু প্রতিবারই পাল্টা জবাব দিয়ে সমতায় ফেরে তুরস্ক। ফলে রোমাঞ্চকর এক ম্যাচে তুর্কিদের বিপক্ষে ৩-৩ গোলের ড্র মেনে নেশন্স লিগের প্রস্তুতি সারে ইয়াখিম লুভের শিষ্যরা।

এদিন অবশ্য নিয়মিত একাদশের বেশির ভাগ খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়েছিলেন লুভ। বিশ্রামে ছিলেন তুরস্কের বেশ কিছু খেলোয়াড়ও। মাঝ মাঠের প্রাধান্য বেশি ছিল জার্মানদেরই। তবে আক্রমণ প্রতি আক্রমণ ম্যাচ চলছিল। কিন্তু গোলের দেখা পাচ্ছিলো না কোনো দল। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে এসে ডেডলক খোলেন উইলিয়ান ড্রাক্সলার। কাই হাভার্টজের পাস অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন এ পিএসজি তারকা।

দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটেই সমতায় ফেরে তুরস্ক। নিজেদের অর্ধে এক জার্মান খেলোয়াড় বল হারালে তা পেয়ে যান কাই আইহান। তার কাছ থেকে বল পেয়ে দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এক খেলোয়াড়কে কাটিয়ে দূরপাল্লার অসাধারণ বাঁকানো এক শটে লক্ষ্যভেদ করেন ওজান তুফান।

তবে ফের এগিয়ে যেতে নয় মিনিট সময় নেয় জার্মানি। ৫৮তম মিনিটে হাভার্টজের সঙ্গে দেওয়া নেওয়া করে নিখুঁত এক শটে লক্ষ্যভেদ করেন ফ্লোরিয়ান নেউহাউস। এর নয় মিনিট পর ফের সমতায় ফেরে তুরস্ক। এবারও সেই জার্মান রক্ষণভাগের ভুল। ডি-বক্সের সামনে ফ্লোরিয়ান বল হারালে তা পেয়ে দারুণ এক শটে জালে জড়াতে কোনো ভুল করেননি ইফেকান কারাকা।

৮১তম মিনিটে আবার এগিয়ে যায় জার্মানরা। বাঁ প্রান্ত থেকে বেঞ্জামিন হেনরিকসের ক্রস ঠেকাতে গিয়েছিলেন চেঙ্গিস উন্দের। তবে ঠিকভাবে করতে না পারলে ডি-বক্সে বল পেয়ে যান লুকা ভালডসমিট। জোরালো এক শটে বল জালে পাঠান বেনফিকার এ ফরোয়ার্ড। ম্যাচের একে বারে শেষ দিকে গোল করে রোমাঞ্চকর এক পরিণতি টানেন কেননা কারামান।

ম্যাচের যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে চিঙ্গিসের দুই ডিফেন্ডারের মাথার উপর দিয়ে করা ভলি আলতো টোকায় কারামানকে দেন আব্দুল কাদির ওমর। ফাঁকায় বল পেয়ে গোলরক্ষক লেনোর দুই পায়ের মাঝ দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন কারামান।

আগামী রোববার নেশন্স লিগের ম্যাচে ইউক্রেনের মুখোমুখি হবে জার্মানি। এরপর বুধবার সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে লড়বে তারা।