তালাকপ্রাপ্তাকে ধর্ষণ, ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা : থানায় মামলা

News News

Desk

প্রকাশিত: ১১:৪৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০

নরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদী সদর উপজেলায় এক তালাক প্রাপ্ত মহিলা ধর্ষণের শিকার হয়েছে। আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা ওই মহিলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

অভিযোগে জানা যায়, নরসিংদী সদর উপজেলার পাঁচদোনা ইউনিয়নের পূর্ব চাকশাল গ্রামের মোঃ খলিল মোল্লার কন্যা লিপি আক্তার (২৩) চার বছর আগে তালাকপ্রাপ্ত হয়ে পিত্রালয়েই বসবাস করে আসছে। তখন একই এলাকার নুরু মিয়ার পুত্র ইয়াছিন (২৮) তাদের বাড়িতে আসা যাওয়া করতে থাকে। এক পর্যায়ে লিপির সাথে ইয়াছিনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সে সুবাদে গত ১০ জানুয়ারি ২০২০ ইং রাত ১১ টার দিকে ইয়াছিন মোবাইল ফোনে লিপিকে তার বাড়িতে ডেকে এনে ধর্ষন করে। এরপর লিপিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ইয়াছিন একাধিকবার তার কাম লালসা পূরণ করে। এক পর্যায়ে লিপি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পরে। লিপি ইয়াছিনকে বিষয়টি জানায় এবং বিয়ের জন্য চাপ দেয়। ইয়াছিন কালক্ষেপন করতে থাকে। বর্তমানে লিপি আট মাসের অন্তঃসত্তা। এমন অবস্থায় লিপিকে বিয়ে করবে না বলে ইয়াছিন জানিয়ে দেয়। ইয়াছিনের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে দীর্ঘদিন অপেক্ষায় থেকে সরলমনা লিপি তার পরিবার ও এলাকার লোকজনের সাথে পরামর্শ করে । এবং গত ২৪ সেপ্টেম্বর মাধবদী থাকায় ইয়াছিনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে নালিশি
মামলা দায়ের করে।