স্বাস্থ্যসেবায় ‘ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্ট’ জাতি হিসেবে অনন্য!!

News News

Desk

প্রকাশিত: ১:৫৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০

বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিল কর্তৃক ‘বি’ ক্যাটাগরির রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্ত ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্টদের অবদান হাসপাতাল সমাজসেবা তথা সমন্বিত চিকিৎসা সেবায় অবর্ণনীয়!! শুধু বাংলাদেশে নয়, বিশ্বের অধিকাংশ দেশেই ফার্মাসিস্টদের ভূমিকা অপরিসীম! তাই, আন্তর্জাতিক ফার্মাসিওটিক্যাল ফেডারেশনের উদ্দ্যোগে ২০০৯ সালে অনুষ্ঠিত তুরস্কের রাজধানী ইস্তাম্বুলে ফার্মাসিস্ট সম্মেলনে “”২৫ সেপ্টেম্বর কে বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস”” হিসেবে ঘোষণা করা হয়।
ফার্মাসিস্টরা দেশে-বিদেশে মানসম্মত ঔষধ তৈরীর মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। ফার্মেসী পেশায় কর্মরতদের উৎসাহ প্রদান এবং এই মহান পেশা সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে ২০১০ সাল থেকে সারাবিশ্বে এই দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালিত হয়ে আসছে।
তারই ধারাবাহিকতায় বিবিডিপিএ ও বিডিপিএসএ যৌথভাবে দিবসটি পালন করে আসছেন।
বিবিডিপিএ এর সাবেক সফল সংগ্রামী সভাপতি মোঃ জহিরুল ইসলাম ও সাবেক সফল মহাসচিব মোঃ আলমগীর রহমান ভাইয়ের নেতৃত্বে সর্বপ্রথম বাংলাদেশে ২০১৭ সাল থেকে সকল ফার্মাসিস্টদের অংশগ্রহনে উৎসব মুখর আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস পালিত হয়ে আসছে।

সাধারণ মানুষকে এ মহান পেশা সম্পর্কে জানাতে এবং পেশার মানকে উচ্চ মর্যাদার আসনে আসীন রাখতে সারাবিশ্বে ২৫ সেপ্টেম্বর এই দিবসটি উৎসব মুখর ভাবে পালিত হয়।
বর্তমান বৈশ্বিক মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে সমগ্র বাংলাদেশে সরকারি, বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার মান বৃদ্ধির জন্য ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্টদের কোন বিকল্প নেই।
মৃতের ভিতরে জলসেচনে উদ্ভিদের যেভাবে প্রাণ সঞ্চার হয়, ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্ট দ্বারা চিকিৎসা পেশায় সেভাবে প্রাণ সঞ্চার হয়!! এ অনন্য জাতির প্রতি আমাদের সকলের শ্রদ্ধা, পেশাগত মূল্যবোধ ও পজিটিভ মানসিকতা পোষণ করা উচিৎ।

মোঃ মিজানুর রহমান।
প্রভাষক(ফার্মেসী অনুষদ),
আইএইচটি -বরিশাল।
সাধারণ সম্পাদক, বিবিডিপিএ –
বরিশাল বিভাগ।